লংগদুতে রাঙামাটি বিজিবি জোনের ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতা

472

dr p....4-1
 
লংগদু প্রতিনিধি, ২০ জুলাই ২০১৬ : লংগদু উপজেলায় ৩৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন রাজনগর (বিজিবি) জোনের ব্যাবস্থাপনায় ও রাঙামাটি সেক্টরের পরিচালনায় দক্ষিণ-পূর্ব রিজিয়ন, চট্টগ্রাম আন্তঃসেক্টর ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতা-২০১৬ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার, রাজনগর বিজিবি জোন সদরে আয়োজিত ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতার ফাইনালে বিজিবি, রাঙামাটি সেক্টর এর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ আশ্রাফুল ইসলাম প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ী দলের নিকট ট্রফি ও ও ইভেন্ট জয়ী খেলোয়াড়দের স্বর্ন, রৌপ্য, তাম্রপদক পরিয়ে দেন।

পদক পুরস্কার বিতরণ শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিজিবি, রাঙামাটি সেক্টর এর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, প্রতিয়োগিতায় যারা অংশ নিয়েছে তারা প্রত্যেকে যে ভালো নৈপূণ্য দেখিয়েছে তার জন্য সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। এই প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণকারীদের মধ্য থেকে বাচাই করে আন্তঃরিজিয়ন পর্যায়ে খোলার জন্য টিম গঠন করা হবে। যাতে চট্টগ্রাম রিজিয়ন টিম চ্যাম্পিয়ন হতে পারে। ভারোত্তোলন প্রতিয়োগিতা সুন্দরভাবে সম্পন্ন করায় তিনি  রাজনগর জোনের ৩৭ বিজিবির সকলকে ধন্যবাদ জানান।

সভাপতিত্ব করেন, রাজনগর জোন ৩৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের কমান্ডার লেঃ কর্ণেল মোঃ তারেক বে-নজীর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লংগদু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ তোফাজ্জল হোসেন। এছাড়া জোনের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও এলাকার গণ্যমান্যগন এসময় উপস্থিত ছিলেন। চট্টগ্রাম আন্তঃসেক্টর ভারোত্তোলন প্রতিযোগিতায় পাঁচটি সেক্টরের খেলোয়াড়গণ অংশ গ্রহন করেন। সেক্টরগুলো হলো কক্সবাজার স্কেটর, বান্দরবান সেক্টর, খাগড়াছড়ি সেক্টর, রাঙামাটি সেক্টর, গুইমারা সেক্টর।

প্রতিযোগিতায় রাঙামাটি সেক্টর ৫টি স্বর্ণ, ২টি রৌপ্য ও ১টি তাম্র পদক পেয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। অপরদিকে কক্সবাজার সেক্টর ২টি স্বর্ণ ও ৪টি রৌপ্য পেয়ে রানার আপ হয়। আর কোন টিমই স্বর্ণপদক জয় করতে পারেনি। প্রতিযোগিতায় শ্রেষ্ট প্রবীন খেলোয়াড় ৭৮২৩৭ সিপাহী সন্তু চাকমা, শ্রেষ্ট নবীন খেলোয়াড় ৮২৬৩৬ সিপাহি হাফিজুর রহমান নির্বাচিত হয়েছেন। এরা দুজই রাঙ্গামাটি সেক্টরের খোলোয়াড়।

খেলা পরিচালনা ও বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন, ঢাকা ভারোত্তোলন ফেড়ারেশনের সদস্য মো. মাসুদুর রহমান মুন্না ও মো. রবিউল ইসলাম ফটিক। যারা স্বর্ণপদক জয় করেছেন তারা হলেন, রাঙ্গামাটি সেক্টরের ৮৮৩০৪ সিপাহী আল-আমীন, ৮৭১৩৭ সিপাহি শুভ দেব, ৭৮২৩৭ সিপাহি সন্তু চাকমা, ৯০৯৩৩ সিপাহি শিমুল মুন্সি, কক্সবাজার সেক্টরের ৯৮৬২৩ সিপাহি মোঃ শাহজাহান, ৮২৬৩৬ সিপাহি হামিদুর রহমান।

পোস্ট করেন, শামীমুল আহসান- ঢাকা ব্যুরোপ্রধান- দৈনিক রাঙামাটি