লামায় সন্ত্রাসী হামলায় ৮ ব্যবসায়ী আহত

450

॥ লামা প্রতিনিধি ॥

বান্দরবানের লামা উপজেলায় সন্ত্রাসীদের হামলায় ৮ কাঠ শ্রমিক ও ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদর ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি পোপা খালের আগায় এই ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতরা হলেন- লামা পৌরসভা এলাকার নয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত লোকমান হোসেনের ছেলে নুরুল আমিন (৫৫), লামামুখ গ্রামের বাসিন্দা মৃত আবদুল মজিদের ছেলে আবদুল জলিল (৬৫) ও তার ছেলে মো. জসিম উদ্দিন (৩৫), সেরু মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়া (৪৫)।

এদের মধ্যে আব্দুল জলিল ও দুলাল মিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় দায়িত্বরত চিকিৎসক তাদেরকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। বাকি ৪ জন স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা গ্রহন করেন। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে আহত ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদেরকে দেখতে লামা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইসমাইল ও থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান।

স্থানীয় ও আহত সূত্র জানান, আট শ্রমিক ও ব্যবসায়ী ব্যবসায়িক কাজে বুধবার দুপুরে লামা সদর ইউনিয়নের পোপা হেডম্যান পাড়ায় যান। সেখানে আগে থেকে ওঁত পেতে থাকা জলপাই রংয়ের পোশাক পরিহিত ১২-১৩ জনের একদল পাহাড়ি অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী টোকেন আছে কিনা জিঙ্গাসা করেন। তারা টোকেন নেই বলার সাথে সাথে বেধড়ক মারধর শুরু করে সন্ত্রাসীরা। এতে ৮ জন আহত হন। পরে স্থানীয়রা আহতদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।