শিক্ষার্থীদের বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের গল্প শুনালেন প্রফেসর বিধান

466

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

আফ্রিকার কালো মানুষের নেতা নেলসন ম্যান্ডেলা, ফিলিস্তিনির ইয়াসিন আরাফাত, তুরস্কের কামাল আতাতুর মতো মানুষের জন্ম হয়েছে জাতিকে মুক্তি দিতে। আর এমনি ভাবে বাঙালী জাতিকে ম,ুক্তি দিতে জন্ম হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের। এখনো রাজ পথে কান পেতে শুনা যায় বঙ্গবন্ধু মরে নাই। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকরা  রাজ পথে  বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে  টিকিয়ে রেখেছে।

এভাবে  রাঙামাটি সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের মাঝে বঙ্গবন্ধু হত্যা কান্ডের গল্প শুনালেন কলেজের উপধ্যক্ষ প্রফেসর বিধান চন্দ্র বড়–য়া। তার বক্তব্যে সুনশান নিরবতা পুরো ক্যাম্পাস, আকাশ জুড়ে বৃষ্টির খেলা। শিক্ষার্থীরা মন দিয়ে শুনছে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস। প্রফেসর বিধান জানান, যিনি আমাদের জন্ম দিয়েছেন তাকে আমাদের সামনে হত্যা করা হয়েছে। আমরা এমন এক জাতি।

স্বাধীনতার পরাজিত শুকুনের দল সেদিন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে ক্ষান্ত হয়নি। পিতার পুরো পরিবারকে বুলেটের আঘাতে আঘাতে নৃশংস ভাবে হত্যা করে।  দেশ জুড়ে তাদের ষড়যন্ত্র এখনো অব্যহত রয়েছে। এইতো সেদিন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বাহিনীর এক সদস্য স্বাধীনতা পরাজিত শক্তিদের এক বংশধর। প্রফেসর বিধান বলেন, আমরা এখনো দেখতে পায় পাকিস্তনী জেনারেল মারা গেলে আমাদের দেশ থেকে এখনও শোক বার্তা পাঠানো হয়।

এতে বুঝা যাচ্ছে আমাদের দেশে খুনী মুস্তাকের দোসররা ষড়যন্ত্রের জাল বুনে যাচ্ছে। এ প্রফেসর জানান,  ফেইসবুকিং,ইন্টারনেট নিয়ে পড়ে থাকলে হবে না। বঙ্গবন্ধুকে জানতে হলে বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনি পড়তে হবে। দেশের সঠিক ইতিহাস না জানলে একদিন আমাদের দেশ থেকে সঠিক ইতিহাস মুছে যাবে। এজন্য এখনি সময় দেশের সঠিক ইতিহাস বাঁিচয়ে রাখতে হলে বঙ্গবন্ধুকে জানতে হবে।  কেননা এ মহান নেতা আমাদের হাজার বছরের গোলামী থেকে মুক্তি দান করেছে।  সারা জীবন জেল-জুলুম কেটেছে এ জাতিকে মুক্তি দেওয়ার জন্য