শেষ হলো রাঙামাটি বইমেলা পাঁচ তরুণ লেখককে সম্মাননা

290

p..2-2

স্টাফ রিপোর্টার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : বিপুল পাঠক আর দর্শনার্থীর উপস্থিতিতে শনিবার সন্ধ্যায় শেষ হয়েছে রাঙামাটি বইমেলা। ২১ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া এই মেলার গতকাল ছিল শেষদিন। এদিন বিকালে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটির জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মোস্তফা জামান এর সভাপতিত্বে এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন রাণী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রনতোষ মল্লিক, শহীদ আব্দুল আলী একাডেমির প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম চৌধুরী, দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম সম্পাদক ফজলে এলাহী এবং লেখক ও সাংবাদিক ইয়াছিন রানা সোহেল। সমাপনী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নেজারত ডেপুটি কালেক্টর নাজমুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো. সামসুল আরেফিন বলেন, বই হলো জ্ঞানের ভান্ডার আর এই জ্ঞান ভান্ডারকে উন্মোচন করে বইমেলা। তিনি বইমেলার পুরো সাতদিনের আয়োজনকে সফল হিসেবে মন্তব্য করে বলেন, রাঙামাটিবাসি প্রমাণ করেছেন তারা বই পড়েন এবং বইয়ের প্রতি তাদের মমত্ববোধ আছে। জেলা প্রশাসক রাঙামাটি বইমেলার সার্বিক আয়োজনে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, শহরের মাঝামাঝি এই স্থানে প্রথমবারের মতো মেলা আয়োজিত হলেও বিপুল পাঠক দর্শকের উপস্থিতি প্রমাণ করেছে মেলা সফল। জেলা প্রশাসক এবারের আয়োজনে কিছু সীমাবদ্ধতার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে যেসব পরামর্শ এসেছে, তার ভিত্তিতে ভবিষ্যতে আরো ভালো প্রস্তুতি ও পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অন্যান্য অতিথিরাও মেলার আয়োজনকে সফল হিসেবে অভিহিত করেন। পরে জেলা প্রশাসক গত একবছরে প্রকাশিত নতুন বইয়ের পাঁচ লেখককে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন। সম্মাননা ক্রেস্ট প্রাপ্তরা হলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বইয়ের জন্য ইয়াছিন রানা সোহেল, কবিতাগ্রন্থের জন্য ফজলে এলাহী, রিপন দাশ ,প্রভা রাণী ধর এবং জেবুন্নেসা সীমি।

এছাড়া মেলায় অংশ নেওয়া প্রতিটি স্টল ও প্রকাশণীকে স্বীকৃতির স্মারক হিসেবে সনদ প্রদান করা হয়। সন্ধ্যার পর মেলামঞ্চে আবৃত্তি পরিবেশন করে স্বদেশ আবৃত্তি সংগঠন। আর সাংস্কৃতিক পরিবেশনা করে জেলা শিশু একাডেমি ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি। ছবির ক্যাপশন- রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের পক্ষ  বইমেলার সমাপনীতে তরুন লেখকদের সম্মাননা স্বারক প্রদান।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান