সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী : ফলাফল ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত ভোটকেন্দ্র পাহারা দিতে হবে

293

BNP  P

ঢাকা ব্যুরো অফিস, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৫, দৈনিক রাঙামাটি : সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী নেতা কর্মীদেও জানিয়েছেন সকল পৌর নির্বাচনে ফলাফল ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত ভোটকেন্দ্র পাহারা দিতে হবে।
শনিবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা জানান। রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, আসন্ন পৌর নির্বাচনে বজ্জাত, খুনী, বদমায়েস, দাম্ভিক, ক্ষমতাদর্পী ও দাগি অপরাধীদের অপতৎপরতা অগ্রাহ্য করে নির্বাচনের দিন ভোট প্রদান করতে হবে। ফলাফল ঘোষনা না হওয়া পর্যন্ত ভোটকেন্দ্র পাহারা দিতে হবে। সরকারী দু:শাসনে সৃষ্ট সকল চড়াই-উৎরাই অতিক্রম করে নির্বাচনকে সফল করতে হবে। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন একটি নিস্ক্রিয় ‘ডাকঘরে’ পরিণত হয়েছে। আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আচরণবিধি লঙ্ঘনসহ অসংখ্য অভিযোগ নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হয়। কিন্তু নির্বাচন কমিশন নির্বিকার ও নিশ্চুপ থাকে।
আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুবুল হক হানিফ বলেছেন যে, নির্বাচন কমিশন বিএনপিকে বেশী সুবিধা দিচ্ছে তার এই বক্তব্যর সমালোচনা করে রিজভী বলেন, তার এই বক্তব্যকে বছরের শ্রেষ্ঠ আলোচিত তামাশা ছাড়া মানুষ অন্য কিছু ভাবতে পারছে না। আর আওয়ামী লীগের তাৎপর্য হচ্ছে রাজনীতি ও রক্তপাতের মধ্যে পরস্পর নির্ভরতা সৃষ্টি। এরা শান্তি, স্বস্তি ও স্থিতি চায় না। এরা জনগণকে সম্মান দিতে চায় না। হুকুম ও বাধ্য করার হুংকার ছেড়ে জনগণকে ভয় দেখিয়ে নির্বাচন করে।তিনি আরো বলেন,  ২০১১ সালে দেশব্যাপী পৌর নির্বাচন ও ২০১৩ সালে ৫টি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সশব্দ পরাজয়ের গ্লানি মেটাতে গিয়ে পরবর্তীতে সকল নির্বাচনে বন্দুক, গুম, ককটেল ও বোমার ওপর নির্ভর করছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির প্রশিক্ষন বিষয়ক সম্পাদক কাজী আসাদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডবোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ দফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন প্রমুখ।

 

বিএনপির তিন নেতা বহিস্কার : একজনকে নোটিশ
ঢাকা ব্যুরো অফিস- দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ এবং দলের স্বার্থ বিরোধী তৎপরতায় লিপ্ত থাকার কারণে বিএনপির তিন নেতাকে বহিস্কার ও  একজনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপিততে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বহিস্কারকৃত নেতারা হলেন, রাজশাহী জেলাধীন নওহাটা পৌর বিএনপি’র সভাপতি রফিকুল ইসলাম, যশোর জেলাধীন বাঘারপাড়া উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের সিদ্দিকী এবং হবিগঞ্জ জেলাধীন শায়েস্তাগঞ্জ পৌর যুবদল সভাপতি হাজী আবদুল মজিদকে বিএনপি’র সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।

এছাড়া চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি’র আহবায়ক অহিদুল ইসলাম বিশ্বাসকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ এবং দলের স্বার্থ বিরোধী তৎপরতায় লিপ্ত থাকায়  ২৪ ঘন্টার মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।  সম্প্রতি বিএনপির আরো ৭ নেতাকে বহিস্কার করা হেেয়ছে।

পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান