সাংবাদিক সম্মেলনে দীপংকর : পৌর নির্বাচনে জেএসএস ভোট ডাকাতি করেছে, আমরা করিনি

226

p.....4

স্টাফ রিপোর্টার, ১ জানুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে ভোট কারচুপি ও ডাকাতির যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা ডাহা মিথ্যা বলে দাবি করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার। তিনি বলেন, নারিকেল গাছের প্রতীকের পক্ষে বরং পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) সমর্থকরাই ভোট কারচুপি ও ডাকাতি করেছে। আওয়ামী লীগের লোকজন ও সমর্থকরা তা করেনি। তিনি আরও বলেন, আমরা জনগণের ওপর আস্থাশীল। নির্বাচনে জনগণই আওয়ামী লীগের প্রার্থী আকবর হোসেন চৌধুরীকে বিপুল ভোটে রায় দিয়ে রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র পদে জয়যুক্ত করেছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর বিপক্ষে আনা বিভিন্ন অভিযোগের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। সংবাদ সম্মে¥লনে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান, চিংকিউ রোয়াজা, কামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. মুছা মাতব্বর, রাঙামাটি পৌর সভার নব নির্বাচিত মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরীসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন। নবনির্বাচিত রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী বলেন, একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের মাধ্যমে পৌরবাসী তাকে জয়যুক্ত করেছে। তাই বিজয় আমার নয়-জাতিধর্ম নির্বিশেষে পৌরবাসী সবার। তাকে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করায় এ বিজয় মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের এবং রাঙামাটি পৌরবাসীর অসা¤প্রদায়িক চেতনার বিজয় হয়েছে।

তিনি পৌর নির্বাচনে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা সকলের সহযোগিতায় তার এই প্রতিশ্রুতি ও সঠিকভাবে দায়িত্ব করার চেষ্টা করবেন। দীপংকর তালুকদার তার বক্তব্যে আরও বলেন, নির্বাচনের দিন সকাল থেকে আমরা শুনতে পাই জেএসএস নিয়ন্ত্রিত বিভিন্ন কেন্দ্র দখল করে তাদের প্রার্থীর পক্ষে ভোট আদায়ে প্রভাব বিস্তার করছিল। এতে নির্বাচন কমিশনের কাছে ভোট পক্ষপাতিত্বমূলক হচ্ছে বলে অভিযোগ করি। এছাড়া বিএনপির সঙ্গে যুক্ত হয়ে কেন্দ্রে কেন্দ্রে গোলযোগ সৃষ্টির ষড়যন্ত্রে মেতে ওঠে জেএসএস-যাতে করে ভোট ধীরগতিতে পড়ে তাদের প্রার্থীর জয় নিশ্চিত করতে পারে। এতে সাধারণ লোকজন হামলার শিকার হয়ে কষ্ট পেয়েছে।

বিভিন্ন কেন্দ্রের ফল উল্লেখ করে দীপংকর তালুকদার বলেন, ফলাফলে দেখা গেছে তাদের নিয়ন্ত্রিত কেন্দ্রগুলোতে জেএসএস প্রার্থীর প্রতীক নারকেল গাছে ৯০ ভাগ ভোট কাষ্টিং হয়েছে। আর আমাদের প্রার্থী জিতেছেন নিজেদের সমর্থিত কেন্দ্রগুলোতে কেবল ৫০ ভাগ ভোট কাষ্টিং হওয়ার মাধ্যমে। এটা প্রমাণ করে যে, ভোট ডাকাতি তারাই করেছে। আমরা যদি করতাম ৮০-৯০ ভাগ ভোট কাষ্টিং করতে পারতাম। আমরা যে ভোট  ডাকাতি করেছি তার অভিযোগ ডাহা মিথ্যা। তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে এবং পরে আমাদের দলীয় নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, মারধর ও হুমকি-ধামকি দিচ্ছে জেএসএসের সশস্ত্র ক্যাডাররা।

নির্বাচনের আগে শহরের চক্রপাড়ায় যুবলীগের ঘাগড়া ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শোভা কান্তি চাকমাকে বেদম মারধর এবং অভিলাষ তঞ্চঙ্গ্যাকে তার এলাকায় গেলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় তারা। নির্বাচনের রাতে বাড়ি ফেরার পথে ঘাগড়া এলাকায় কাউখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সজীব দত্তের ওপর সন্ত্রাসী হামলা করে। বর্তমানে তার অবস্থা আশংকাজনক। রাঙামাটির পৗরসভায় যে আলোর আধার রয়েছে নবনির্বাচিত মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী এ পৌরসভার সকল আলোর জ্বালিয়ে দিয়ে উন্নয়নের ধারা সংযুক্ত করবেন বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

পোস্ট- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান।