সেনাবাহিনী পার্বত্যাঞ্চলে সম্প্রীতি ও উন্নয়নে কাজ করেছে

502

B ARMI

স্টাফ রিপোর্টার, ২৬ নভেম্বর ২০১৫, দৈনিক রাঙামাটি : সেনাবাহিনী পার্বত্যাঞ্চলে সকল জনগণের নিরাপত্তা, সম্প্রীতি ও উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। এসকল কর্মসূচীর মধ্যে বিভিন্ন মেডিক্যাল ক্যাম্প, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ, পলি¬ চিকিৎসক প্রশিক্ষণ, বিভিন্ন সড়ক ও কালভার্ট নির্মাণ, বিভিন্ন বিদ্যালয়ে সার্বিক সহযোগিতা ও খেলাধূলার আয়োজন করে আসছে। আগামীতেও এর ধারাবাহিকতা বজায় থাকার জন্য বক্তাতারা সকলের সার্বিক সহযোগিতার আহবান জানান।

রাঙামাটি জেলার লংগদুত সেনা জোনের উদ্যোগে বুধবার ‘নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা’ বিষয়ক এক সভায় তারা এ আহবান জানান।

তারা বলেন, দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া লংগদু উপজেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অন্যান্য সময়ের চেয়ে অনেক ভালো রয়েছে। এ অবস্থা যেন সব সময় বজায় থাকে।

লংগদু সেনা জোনের বিনোদন কক্ষে আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন জোন কমান্ডার লে: কর্ণেল মো: মাহাবুর রহমান। বক্তব্য রাখেন, গুলশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো: আব্দুর রহীম। লংগদু মৌজার হেডম্যান কুলিন মিত্র চাকমা (আদু), আটারকড়া ইউপি চেয়ারম্যান মঙ্গল কান্তি চাকমা, লংগদু জনসংহতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনিশংকর চাকমা, জাতীয় ইমাম সমিতির লংগদু উপজেলা শাখার সভাপতি আমিনুর রশীদ, মাইনীমুখ বাজার ব্যাবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মেহেদী হাসান সোহেল প্রমুখ।

তারা বলেন, লংগদুবাসী সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী। তাই এখানে পাহাড়ী ও বাঙ্গালী সকলেই সহাবস্থানে থেকে বসবাস করছেন।

সভায় জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর মো: গোলাম আজম, মেজর তানবির, মেজর মো: নোমান, ক্যাপ্টেন আরেফিন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা মো: নাছির উদ্দিন, বাইট্টপাড়া আনসার ব্যাটালিয়নের কমান্ডার তরুণ কুমার, লংগদু থানার এস আই মোঃ জাকির হোসেন, লংগদু প্রেস ক্লাবের সভাপতি এখলাস মিঞা খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সম্পাদনা- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান। সূত্র- বাসস