স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাঙামাটিতে বিশ্ব ইয়োগা ও যোগ ব্যায়াম দিবস পালিত

292

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥
“সুস্থদেহ- সুস্থমন, মানবজীবনে সুস্থতায় ইয়োগা /যোগব্যায়াম” এই শ্লোগানে রাঙামাটিতে পালিত হয়েছে  আন্তর্জাতিক যোগ ব্যায়াম দিবস ২০২০। যোগ ব্যায়াম প্রদর্শনী ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে রোববার (২১জুন) রাঙামাটিতে দিবসটি পালন করা হয়। বিশ্বব্যপী করোনা পরিস্থিতিতে সম্পূর্ণরূপে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই আলোচনা সভা ও যোগ্য ব্যয়াম চর্চার আয়োজন করা হয়।

রাঙামাটি জেলা ইয়োগা এসেসিয়েশন এর উদ্যোগে ও ভারতীয় হাই কমিশনারের অর্থিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় বক্তাগণ করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে যোগব্যয়াম একটি কার্যকরি প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে বলে উল্লেখ করেন। এ সময় যোগ ব্যয়াম কিভাবে শ্বাসনালী ও ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে তা বাস্তব অনুশীলনের মাধ্যমে প্রদর্শন করেন জাতীয় ইয়োগ প্রতিযোগীতায় ব্রোঞ্জপদক প্রাপ্ত তরুন শরীর চর্চাবিদ সুমাইয়া ফারিয়া মম।

রাঙামাটি জেলা ইয়োগা এসেসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আরফান আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতি (এফপিএবি) রাঙামাটি জেলা শাখার নির্বাচিত সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মুজিবুর রহমান মুজিব।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সেক্রেটারী ও দৈনিক রাঙামাটি সম্পাদক আনোয়ার আল হক, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইলিয়াস, এফপিএবি রাঙামাটি কোষাধ্যক্ষ এডভোকেট আবুল কালাম আকাশ ও এফপিএবি’র মেডিকেল অফিসার ডাঃ ক্যাং চাক। অনুষ্ঠানে যোগ ব্যয়াম নিয়ে লেখা স্বরচিত কবিতা আবৃত্তি করেন কবি সুফিয়া বেগম। এতে আরো বক্তব্য রাখেন সংগঠনের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিক নুরজাহান পারুল।

বক্তব্য প্রদানকালে অতিথিগণ বলেন, যোগ ব্যায়াম শুধুমাত্র শরীর চর্চাই নয় বরং এ অভ্যাস রপ্ত করলে শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকবে। বিশ্বজুড়ে বর্তমানে মহামারি আকারে ছড়ানো দরারোগ্য ব্যাধি করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে যোগব্যয়াম একটি কার্যকরি প্রতিষেধক হিসেবেও কাজ করে বলে উল্লেখ করেন তারা। এ ছাড়া ইয়োগা চর্চায় ঈর্ষাকাতরতা থাকবে না, মানসিক যন্ত্রণা দুর হবে।’ ‘যোগ ব্যায়াম মানুষের শরীর সুস্থ রাখতে বিশাল ভূমিকা রাখে। একটি জাতি সুস্থ না থাকলে দেশ কখনো সুষ্ঠুভাবে চলতে পারে না। তাই শিশুকাল থেকেই ছেলে মেয়েদের যোগ ব্যায়ামের প্রতি আকৃষ্ট করতে হবে। ব্যায়ামের ফলে মাদক থেকেও যুবদের দুরে রাখা সম্ভব বরে জানান তিনি।

এ সময় ইয়োগা এসোশিয়েশনের পক্ষ থেকে করোনা প্রতিরোধে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মোতাবেক প্রদত্ত বিভিন্ন স্বাস্থ্যবিধি সম্বলিক লিফলেট বিতরণ ও ফেস্টুন প্রদর্শন করা হয়।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সাল থেকে ভারতীয় হাইকমিশন বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন করে আসছে। ২০১৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দেয়ার সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসেবে পালন করার প্রস্তাব দেন। সেই বছরই ১১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়। বাংলাদেশও দিবসটি পালনের পক্ষে সমর্থন দেয়।