হরতাল পালনের পর পার্বত্য চট্রগ্রামের ৫ সংগঠনের নতুন কর্মসূচি

447

cht dr dhaka
ঢাকা ব্যুরো অফিস, ১ সেপ্টেম্বর ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : পার্বত্য চট্রগ্রামে দুইদিনের ডাকা  হরতাল সফল করার জন্য পাঁচ সংগঠনের নেতা কর্মীদের প্রতি কৃজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন নাগরিক পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আলকাস আল মামুন, পার্বত্য গণপরিষদের মহাসচিব এডভোকেট পারভেজ তালুকদারসহ পার্বত্য গণ পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ আলম খান , পার্বত্য নাগরিকপরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ আহম্মেদ রাজু ও পার্বত্য চট্রগ্রাম সমধিকার আন্দোলনের সম্বনয়ক জাহাঙ্গীর কামাল ও মহাসচিব মনিরুজ্জামান মনির , পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র ঐক্য পরিষদ , ঢাকা মহানগর সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সভাপতি খাগড়াছড়ি জেলার মোঃ সাইফুল ইসলাম খান, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার লোকমান হোসেন, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ ঢাকা মহানগর সভাপতি সাহাদাত ফরাজি সাকিব, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক সোহেল রিগ্যান,  পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাব্বির আহম্মেদ ।

তারা তিন পার্বত্য জেলা সর্বাত্মক হরতাল পালন করার ও হরতালে শরিক হয়ে আন্দোলনকে শক্তিশালী করার জন্য পার্বত্য বাসিকে ধন্যবাদ জানান। হরতাল পার্বত্য জনগনের যে কষ্ট হয়েছে তার জন্য সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে দৃঃখ প্রকাশ করা হয়। গত ১লা আগষ্ট ২০১৬ পার্বত্য ভূমি কমিশন আইন মন্ত্রীসভায় পাস করা এবং অধ্যাদেশ জারিসহ তরিগরি করে ৯ আগষ্ট ২০১৬ গেজেট আকারে প্রকাশ করায় এর তীব্র নিন্দা করা হয় । তারা বলেন, পার্বত্য ভূমি কমিশন আইন যেহেতু একটি ষড়যন্ত্র মূলক আইন এবং বাঙ্গালীদের অধিকার খর্ব করার আইন তাই এ হরতাল ডাক দেয়া হয়। পার্বত্য বাঙ্গালীদের অনেকে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ অন্যান্য দলের সাথে সক্রিয় এবং জাতীয় রাজনীতির সাথে জড়িত। কিন্তু পার্বত্য বাঙ্গালীদের জাতীয় স্বার্থ নিয়ে রাজনীতি ক্ষেত্রে তাদের কারো কোন সহযোগিতা পাওয়া যায় না। ভুমি কমিশন ও বাঙ্গালীদের স্বার্থ বিরোধী কোন ক্ষেত্রে বড় দলের ভুমিকা নেই।

সংগঠনগুলোর নেতারা একমত হয়ে পরবর্তিতে পালনের জন্য আরো কিছু কর্মসূচি ঘোষণা করেন। কর্মসূচিগুলো হলো- ১. ভুমিকমিশন আইন বাতিল করা যুক্তি উপস্থাপন করে তিনজেলা লিফলেট বিতরণ করা। ২. তিন জেলা গণসতেনতা মুলক স্থানীয় নেতাদের সাথে বৈঠক করা। ৩. প্রধানমন্ত্রি ও ভুমিকষন চেয়ারম্যান বরাবর স্বারক লিপি দেয়া। ৪. তিন পার্বত্য জেলা সকাল সন্ধায় হরতারল করা। – সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান