হয়রানির অভিযোগে আসবাবপত্র ব্যবসায়ী সমিতির সংবাদ সম্মেলন

360

p.....5

স্টাফ রিপোর্টার, ৯ জানুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : জেলা প্রশাসনের পারমিটের মূলে রাঙামাটি হতে চট্টগ্রামে আসবাবপত্র পারাপারকালে চট্টগ্রাম বিজিবি কর্তৃক ব্যবসায়ীদের হয়রানি ও ৭ লক্ষ টাকার বৈধ আসবাবপত্র লুটপাটের অভিযোগ করেছে রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতি।

শনিবার বিকেলে রাঙামাটি কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে ব্যবসায়ীরা এই অভিযোগ করেন। লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে রাঙামাটি থেকে ৭টি চেক পোস্ট পার হয়ে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আসবাবপত্র সরবরাহ ও পরাপার করছে রাঙামাটির আসবাব পত্র ব্যবসায়ীরা। কিন্তু গত এক সপ্তাহ ধরে চট্টগ্রামের খুলশী চক্ষু হাসপাতাল এলাকায় বিজিবি এসব আসবাবপত্রের গাড়ী চেক করার নামে ড্রাইভার ও ব্যবসায়ীদের হয়রানী এবং বিভিন্ন সময়ে মালামাল লুট করছে।

গত ১ ডিসেম্বর বিভিন্ন পারমিটের অনুকুলে ২৪ আইটেম আসবাবপত্র রাঙামাটি হতে চট্টগ্রামে পরিবহনকালে চট্টগ্রামের খুলশিতে বিজিবি মালবাহি ট্রাক আটক করা চার দিন পর আট আইটেমর আসবাবপত্র জব্দ দেখিয়ে বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করে বিজিবি। একই কায়দায় গত ৮ ডিসেম্বর একই স্থানে আসবাবপত্রবাহি রেইনবো পরিবহনের একটি গাড়ি আটক করে নিয়ে যায় বিজির সদস্যরা। ঐ গাড়িতেও ২৪ আইটেম আসবাবপত্র থাকলেও শনিবার পর্যন্ত এর কোন হদিস পাওয়া যায়নি বলে সংবাদ সম্মেলণে অভিযোগ করা হয়।

সাংবাদিক সম্মেলনে নেতৃবৃন্দরা অবিলম্বে এ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি দাবী জানান। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন নেতৃবৃন্দ। সংবাদ সম্মেলন থেকে আজ সকাল ১০টায় মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসুচি ঘোষণা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব কামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. মহিউদ্দিন পেয়ারু, পৌর কাউন্সিলর মো. জামাল উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক হিরো তালুকদার। এসময় উপস্থিত ছিলেন আসবাবপত্র ব্যবসায়ী নেতা মো. আব্দুল খালেক, মো. আলমগীর, উত্তম দেব, মো. আলি প্রমুখ।

পোস্ট- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান