৪ দফা দাবীতে রাঙামাটির টিটিসিতে শিক্ষা কার্যক্রম বজর্নের ঘোষনা দিলো পিসিপি সমর্থিত শিক্ষার্থীরা

464

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

চার দফা দাবী আদায়ে রাঙামাটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান টিটিসিতে অনির্দিষ্ট্যকালের জন্য শিক্ষা কার্যক্রম বর্জনের ঘোষনা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ সমর্থিত শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনকারিদের পক্ষ থেকে আজ এই এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

ছাত্রলীগ নামধারী টেকনিক্যাল এলাকার বহিরাগত চিহ্নিত কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ক্যাম্পাসের ভিতর সাধারন শিক্ষার্থীদের হয়রানি, ভয়ভীতি প্রদর্শন, ছাত্রীদের উত্যক্তকরণ, মাদক সেবন, উশৃঙ্খল কার্যকলাপের মধ্যদিয়ে শিক্ষঙ্গনের সুষ্ঠু পরিবেশ বিনষ্ট করা, সাধারণ ছাত্রদের উপর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করা এবং জুলি চাকমাকে ইভটিজিং কারীদের শাস্তির দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য শিক্ষা কার্যক্রম বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে রাঙামাটি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সাধারন শিক্ষার্থীরা।

সাধারন শিক্ষার্থীদের পক্ষে ইন্দ্র বিকাশ চাকমা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বার্তায় আজ সকালে এই খবর জানানো হয়।

গত ১৭ই জুলাই ২০১৭ রোজ সোমবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জুরাছড়ি থানা শাখার সহ-সভাপতি জ্ঞানমিত্র চাকমা(২৮), সহ সাধারণ সম্পাদক রকি চাকমা (২৬) সহ তাদের মদদপুষ্ট টিটিসির উশৃঙ্খল ছাত্র ঝন্টু চাকমা(১৭) টিটিসির ক্যাম্পাসে এসে ১০ম শ্রেণীর ওয়েল্ডিং ট্রেডের মেধাবী একছাত্রীকে(১৬) উত্যক্ত করে।

এতে টিটিসির কয়েকজন সাধারণ ছাত্র-ছাত্রী প্রতিবাদ করলে তাদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধেঁ এবং তথাকথিত ছাত্রলীগ নামধারী ঝন্টু চাকমাসহ কয়েকজন সাধারণ ছাত্র আহত হয়। এই ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার লক্ষে জ্ঞানমিত্র চাকমা বাদী হয়ে ৭ জন নিরীহ ছাত্রের নাম উল্লেখ করে এবং ১৪ জনকে অজ্ঞাত করে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করেন।

এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না হওয়ার আগ পর্যন্ত এবং চিহ্নিত বহিরাগত সন্ত্রাসী জ্ঞানমিত্র চাকমা ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে অনতিবিলম্বে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।