নারী দিবসের দিন লংগদুতে দুই বান্ধবীর ঝুলন্ত লাশ

273

dr longodu

লংগদু প্রতিনিধি- ৮ মার্চ ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : টিফিন ছুটির ফাঁেক বাসায় ফেরার কিছু সময় পরই দুই স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে লংগদুর চাইল্যাতলী এলাকাবাসী। তাদের লাশ আম গাছের ডালে ওড়না পেচানো অবস্থায় পাওয়া যায়। মৃত দুই শিক্ষার্থী হলো- ময়না আক্তার (১৩) ও নূর বানু (১২)। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটার সময় ভাসাইন্যা আদম ইউনিয়নের চাইল্যাতলী এলাকায় এই নির্মম ঘটনাটি ঘটে।

তারা উভয়েই চাইল্যাতলী বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী বলে জানিয়েছেন ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফয়জুল ইসলাম। ভাসাইন্যাদম ইউনিয়নের সাতনং ওয়ার্ডের মেম্বার শেখ ফরিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনার পরপর বিষয়টি লংগদু থানাকে অবহিত করা হলে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলের দিকে রওয়ানা দেয়। প্রাথমিকভাবে তাদের পারিবারিক সূত্র এই ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে ধারণা করলেও কি কারণে তারা  আত্মহত্যা করতে পারে তা ধারণা করতে পারেনি পরিবারে কেউ বা এলাকাবাসী।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ইউনিয়নের ১০ নং রাঙাপানি ইউনিয়নের জনৈক হযরত আলীর কন্যা ময়না আক্তার (১৩) ও নুরুল ইসলাম নুরুর কন্যা নূর বানু (১২) উভয়েরই বাড়ি পাশাপাশি এবং দু’জনেই বান্ধবী। তারা বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীতে একসাথে পড়ে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে তিনটার সময় তারা দু’জনে বিদ্যালয় থেকে বাসায় ফিরে আসে। বাসার আসার ঘন্টাখানেক পরেই বাড়ি থেকে একশো গজ দূরের একটি আম গাছের ডালে ওড়না গলায় পেছানো অবস্থায় তাদের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় ময়নার আম্মা। এ সময় তিনি নিজেই দা’দিয়ে ওড়না কেটে নিহত দু’জনকে নীচে নামিয়ে আনেন।

তাদের বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ফয়জুল ইসলাম জানিয়েছেন, উক্ত দুই স্কুলছাত্রীর আচার-আচরণ সম্পূর্ন স্বাভাবিক ছিলো। ঠিক কি কারনে এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে জানি না। তাদেরকে পাঠদানকালীন সময়ে কোনো ধরনের মারধর কিংবা আত্মহত্যায় প্ররোচনামূলক কোনো কর্মকান্ড সংগঠিত হয়নি বলেও দাবি করেন প্রধান শিক্ষক। বিদ্যালয়ে অবস্থানকালীন সময়ে তারা সম্পূর্ন সুস্থ অবস্থায় ছিল বলেও জানান তিনি।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান