রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে সহসাই আইসিইউ ইউনিট স্থাপন করা হবে

60

॥ শহিদুল ইসলাম হৃদয় ॥
করোনা মহামারি থেকে বাঁচার জন্য মাস্ক ব্যবহারের গুরুত্ব তুলে ধরে রাঙামাটির জেলাপ্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ সর্বশেষ শ্লোগান হলো ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ তাই যারা মাস্ক পরবে না তাদের সেবা প্রদান বন্ধ রাখার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। এতে অসচেতন নাগরিকরা মাস্ক প্রদানের বিষয়ে সতর্ক হবে।

রোববার অনুষ্ঠিত রাঙামাটি জেলার মাসিক আইন শৃঙ্খলা সভায় এ মন্তব্য করেন জেলা প্রশাসক। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিভিল সার্জন জানান, শীঘ্রই রাঙামাটিতে একটি ক্ষুদ্র আইসিইউ প্রতিষ্ঠা হবে। বিষয়টি সংশ্লিষ্টদের সক্রিয় বিবেচনায় রয়েছে। এসময় সিভিল সার্জন আরো জানান, রাঙামাটি জেলায় বর্তমানে নতুন আইসোলেশন সেন্টার করা হয়েছে রাঙামাটি সরকারি কলেজে। সেখানে একসাথে এক শ’ মানুষকে আইসোলেশনে রাখা যাবে।

সভাপতির বক্তব্যে জেলাপ্রশাসক বলেন, বিশ্বের অনেক দেশে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ লক্ষ করা যাচ্ছে। বাংলাদেশের বিশেষজ্ঞরা বলছে, শীতের প্রকোপ দেখা দিলে আমাদের দেশেও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসতে পারে। মরণঘাতী এই ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকাতে হলে আমাদের নিজেদের প্রোটেকশন নিজেদেরকেই নিতে হবে। নিজেদেরকে সুরক্ষা করার সর্বোত্তম পন্থা হচ্ছে স্বাস্থবিধি মেনে চলা, মাস্ক ব্যবহার করা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার বা হাত ধোয়া।

তিনি আরো বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের সকল সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান গুলোকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে “নো মাস্ক নো সার্ভিস” এর। তাই আমাদের রাঙামাটিতেও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সহ ব্যাংক, বাজার, দোকানে দায়িত্বরতরা একযোগে যদি জনগণের মাঝে একটি বিষয় ফুটিয়ে তুলতে পারি যে আমরা মুখে মাস্ক পড়া ছাড়া কোনো ব্যক্তিকে সেবা বা সার্ভিস দিবোনা। তাহলে জনগণের মাস্ক পরিধান ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প পথ থাকবে না। দেশের এই দুর্যোগময় সময়ে আমরা সকলে এক হয়ে কাজ করলে আমরা রাঙামাটি জেলাকে করোনা মুক্ত রাখাসহ দেশ থেকে করোনা ভাইরাস নির্মূল করতে সক্ষম হবো।

এসময় রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে তিন শয্যা বিশিষ্ঠ আইসিইউ স্থাপনের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে বলেও জানিয়েছেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক।

মাসিক আইন শৃঙ্খলা সভায় রাঙামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ এর সভাপতিত্বে অন্যান্যর মধ্যে রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র মোঃ আকবর হোসেন চৌধুরী, রাঙামাটি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ছুফিউল্লাহ, সিভিল সার্জন ডাঃ বিপাশ খীসা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শিল্পী রানী রায়, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ত্রিদীব কান্তি দাশ, আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাজী মোঃ কামাল উদ্দিন, রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আল হকসহ সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধান ও প্রতিনিধি এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।