রুমার দুর্গমাঞ্চলে পাহাড়ি সশস্ত্র দু’গ্রুপের ব্যাপক গুলিবিনিময়; এলাকায় আতঙ্ক

54

বান্দরবান প্রতিনিধি

বান্দরবানে রুমা উপজেলায় জনসংহতি সমিটি(জেএসএস ও কুকিচিং( কেএনএফ) পাহাড়ে সশস্ত্র দুই গ্রæপের মধ্যে গোলাগুলির খবর পাওয়া গেছে। তবে এই ঘটনায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে ১ নং পাইন্দু ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডে আলেচু পাড়া ও তংমক পাড়া মাঝখানে গোলাগুলি শুরু হয়।

গোলাগুলির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রুমা উপজেলা চেয়ারম্যান উহ্লাচিং মারমা।
তিনি জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে জানতে পেরেছি, পাহাড়ে দুই সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে থমথমের গুলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। তবে এই ঘটনায় কতজন মারা গেছে বা হতাহত হয়েছে তা জানা যায়নি। কিন্তু আশপাশে এলাকায় আংতঙ্ক বিরাজ করছে।

প্রশাসন এ ব্যাপারে জানেন কি তিনি জিজ্ঞেস করা হলে, তিনি এ বিষয়ে সুদুত্তর দিতে পারেনি।
স্থানীয়রা সুত্রে জানা গেছে, সকাল থেকে হঠাৎ করে আলেচু পাড়া ও তংমক পাড়া মাঝামাঝি গোলাগুলি শব্দ শুনতে পায়। দুপক্ষের শুধু তুমুল ভাবেভাবে গোলাগুলির। ভয়ে কেউ ঘরে বাইরে বের হচ্ছে নাহ। ফলে আতঙ্কে বিরাজ করছে ওই গ্রামের স্থানীয়দের। তবে এখনো পর্যন্ত হতাহতে খবর পাওয়া যায়নি।

১নং ওয়ার্ড মেম্বার মংছো মারমা বলেন, গোলাগুলি হয়েছে শুনেছি। কিন্তু আহত কিংবা নিহত কতজন হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি।

রুমা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, দু’গ্রæপের গোলাগুলির বিষয়ে শুনেছি। দুর্গম এলাকা হওয়ার যোগাযোগ নিতে ব্যাহত হচ্ছে।