স্কাউটিং আন্দোলন শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধের সৃষ্টি করে : সামসুল আরেফিন

269

p.1-1

আলমগীর মানিক- ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : স্কাউটিং অন্দোলনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা উন্নত নৈতিক চরিত্রের অধিকারী হিসাবে নিজেদের গড়ে তোলার সূযোগ পায়। তাই শিক্ষার্থীদের জন্য স্কাউটিং একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় বলে উল্লেখ করেছেন রাঙামাটি জেলা স্কাউটস সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. সামসুল আরেফিন। তিনি বলেন স্কাউটিং আন্দোলনে সম্পৃক্ত শিক্ষার্থীরা কখনো বিপদগামী হতে পারে না এবং মূল্যবোধের অবক্ষয়ের মুখে পড়েনা। শিক্ষার্থীদের যতবেশী এই স্কাউটিং আন্দোলনে সম্পৃক্ত করা যাবে  জাতি তত বেশী উপকৃত হবে তাই প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্কাউটিং আন্দোলন ছড়িয়ে দিতে হবে। শৃংখলাবোধ এবং দায়িত্ববোধের পাশাপাশি স্কাউটিং আন্দোলনের মাধ্যমে দেশাত্ববোধেরও সৃষ্টি হয় বলে মত প্রকাশ করেন তিনি।

স্কাউটিং আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা বাডেন পাওয়েলের জন্ম বার্ষিকী ও বিশ্ব স্কাউট দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকালে রাঙামাটি জেলা স্কাউটস ভবনে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এ কথা বলেন। জেলা স্কাউটস এর প্রবীন সদস্য বাদল চন্দ্র দে’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা স্কাউটস এর যুগ্ম সম্পাদক ইলিয়াছ আযম আশরফি, কোষাধ্যক্ষ নজির আহমেদ তালুকদার, জেলা স্কাউট লিডার বিজন কুমার দে, কাব লিডার নির্মল কান্তি চাকমা, সহকারী কমিশনার  হাজী বদিউল আলম, স্কাউটস এর উপ-পরিচালক শামিমুল ইসলাম।

জেলা প্রশাসক আরো বলেন স্কাউটিং আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা যে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে ১৯০৭ সালে স্কাউটিং আন্দোলনের সূচনা করেছিল আজ বিশ্বব্যাপী সেই আন্দোলনে সমাদৃত  হয়েছে। অনুষ্ঠানে রাঙামাটি জেলা স্কাউটিং আন্দোলনে অসামান্য অবদান রাখায় রাঙামাটি বনরূপা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বাদল চন্দ্র দে, যোগেন্দ্র দেওয়ান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রসন্ন কুমার চাকমা এবং শাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের  অবসরপ্রাপ্ত স্কাউট শিক্ষক আবুল বশর চৌধুরীকে বিশেস সম্মননা প্রদান করা হয়। এছাড়া শাপলা কাব এ্যাওয়ার্ড অর্জনকারী সামসুল আরেফিন, সাকিব মোস্তফা ও মনিষা বড়–য়াকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। মহান শহীদ দিবস উপলক্ষে জেলা স্কাউটস আয়োজিত চিত্রাংকন ও সুন্দর হাতের লিখন প্রতিযোগিতায় বিজযীদের মাঝেও অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরন করা হয়।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান