৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে : নয়াপল্টনে বিএনপির জনসভায় বেগম খালেদা জিয়া

523

Untitled-1

ঢাকা ব্যুরো অফিস, ৫ জানুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে। আর পৌর নির্বাচনে জনতার রায় ছিনতাই করা হয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে সব পৌরসভায় বিএনপি জিততো। তিনি বর্তমান ইসিকে মেরুদন্ডহীন বলে মন্তব্য করেছেন। নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থার নিয়ে সৃষ্ট দ্বন্দের অবসান ঘটাতে সংলাপের মাধ্যমে একটি গ্রহনযোগ্য সমাধানের আহবান জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপরসন বেগম খালেদা জিয়া।
সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আসুন গণতন্ত্র রক্ষার জন্য সংলাপ ও আলোচনার মাধ্যমে সৃষ্ট সমম্যার সমাধান বের করি। আমাদের কারো প্রতি রাগ, ক্রোধ ও বিরোধ নেই। আপনারা যা করেছেন ভুল করেছেন। মনে মনে তা স্বীকার করে নেন।
মঙ্গলবার বিকেলে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্র হত্যা দিবসের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন। জনসভার আয়োজন করে ঢাকা মহানগর বিএনপি।
খালেদা জিয়া তার বক্তব্যে সিটি-পৌরসভা নির্বাচনে কারচুপি, সরকারের দুর্নীতি, বিরোধী দলের উপর হামলা-মামলা, নির্যাতন, বিনিয়োগহীনতা, শিক্ষাব্যবস্থা ধ্বংস, দু:শাসন, গুম-খুনের চিত্র তুলে ধরেন।
উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়া বলেন, দেশটার দিকে একটু দেখুন, সব শেষ হয়ে গেছে। দেশের দিকে তাকিয়ে কাজ করতে হবে। সকলে মিলে দেশটাকে গড়ে তুলে পৃথিবীর মানচিত্রে এমন ভাবে গড়ে তুলবো যাতে আমাদের কেউ ছোট ভাবতে না পারে।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য গয়েশ্বরের সভাপতিত্বে  আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, লে জে (অব) মাহবুবুর রহমান,  ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ড. আব্দুল মঈন খান,  নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, আব্দুল্লাহ আল নোমান, আবদুল্লাহ আল নোমান, সোলিা রহমান, মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মো. শাহজাহান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা  শামসুজ্জামান দুদু, খন্দকার মাহবুব হোসেন, ডা. অধ্যাপক জেড এম জাহিদ হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদিন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, যুব দলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা মহনগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আবুল বাশার, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুনির হোসেন, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান প্রমুখ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মীর মোহাম্মাদ নাসির, অ্যাডভোকেট আহমেদ আজম খান, আব্দুল মান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, সহ তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম নীরব প্রমুখ।

সম্পাদনা- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান